Breaking News
Home / আমাদের চট্টগ্রাম / আবাম ফাউন্ডেশন এর পক্ষ থেকে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের স্কুল ড্রেস বিতরণ

আবাম ফাউন্ডেশন এর পক্ষ থেকে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের স্কুল ড্রেস বিতরণ

আব্দুল্লাহ আল নোমান,বার্তা সম্পাদক : চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনে আলোর আশা ফাউন্ডেশন কর্তৃক পরিচালিত সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের স্কুল School of Humanity& Animation (SOHA)। এই স্কুলে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের বেশীরভাগ পথশিশু ও সুবিধাবঞ্চিত। স্কুলটি ভাসমান। চট্টগ্রামের বিভিন্ন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীবৃন্দ এখানে বিনামূল্যে পাঠদান করেন। সোহা স্কুল পরিচালক ও আলোর আশা ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা আনোয়ার এলাহি ফয়সাল জানান ওদের একটি ড্রেসের আওতায় আনা গেলে ওরা পড়াশুনায় আগ্রহী হবে এবং অপরাধ প্রবণতা থেকে সরে আসবে।বিষয়টি বিবেচনা করে আবাম ফাউন্ডেশন – এর সহ সভাপতি সায়দুল আলম মামুন ও সাধারণ সম্পাদক জাহেদুল আলম মাসুদ আবাম ফাউন্ডেশন এর পক্ষ থেকে সোহা স্কুল ড্রেস বিতরণ করেন।

ড্রেস উদ্ধোধন ও বিতরণ অনুষ্ঠানে সোহা শিক্ষার্থীবৃন্দ দেশাত্মবোধক সংগীত পরিবেশন করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন সম্মিলিত সামজিক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ও চিটাগাং বয়েজ এর প্রতিষ্ঠাতা শরিফুল ইসলাম শরীফ।এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন আলোর আশার সিনিয়র সহ সভাপতি মুরাদ শামসুল আলম খাঁন, সহ সভাপতি হাফেজ জোবায়ের হোসেন সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শরীফ, তথ্য ও যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল নোমান সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক তৌফিক ইমন সহ অন্যান্য সদস্যমন্ডলি৷

অনুষ্ঠানে বক্তারা এ ধরণের উদ্দ্যোগকে স্বাগত জানান এবং ভবিষ্যতে ও পাশে থাকার আশ্বাস দেন। সিনিয়র সহ সভাপতি মুরাদ শামসুল আলম খাঁন বলেন, আজ থেকে কিছুটা হলেও মুছে যাবে পথশিশু নামক পরিচয়। এখন ওদের পরিপূর্ণ স্কুল শিক্ষার্থী মনে হবে। সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শরীফ বলেন ওরা পথ শিশু হওয়ায় অনেক গাড়ীর ড্রাইভার তাদের গাড়ীতে নিতে পারে না।যার ফলে ওরা স্টেশন থেকে পোস্তারপাড় নিয়মিত ক্লাস করতে যেতে পারে না। স্কুল ড্রেস থাকার ফলে ওরা এ সমস্যা নিরসন হবে ইনশাআল্লাহ। আবাম ফাউন্ডেশন এর সহ সভাপতি সাইদুল আলম মামুন বলেন,আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। সমাজের স্বাভাবিক শিশুরা সুবিধা পায় বলে তারা উন্নতির হাল ধরে এরাও যদি একটু সুবিধা পায় তাহলে এরা ও সম্পদে পরিণত হবে৷ সমাজের সকল বিত্তবানদের উচিৎ সোহা স্কুলের পাশে দাঁড়ানো।

ড্রেস পেয়ে সোহা শিক্ষার্থীরা অানন্দ উৎযাপন করে। ফাতেমা জানায়, এখন থেকে আমাকে গাড়ি তে লইবো আমার আর ক্লাসে যেতে অসুবিধে হবে না। আনিকা বলে অনেক বাচ্চা আছে আমাদের এখানে পড়ে না কিন্তু তারা সবাইকে বলে তারাও আমাদের সোহা স্কুলে পড়ে। ওরা কোন দোষ করলে আমাদের দোষ হয় এখন আমাদের স্কুল ড্রেস আছে এখন আমরা সবার থেকে আলাদা। আলোর আশা ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আনোয়ার এলাহি ফয়সাল আবাম ফাউন্ডেশন এর নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং বলেন পড়ানো শুরু করেছিলাম আমরা তবে পথশিশু শব্দটি থেকে বের করে এনেছে আবাম ফাউন্ডেশন।আলোর আশা ও সোহা শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা স্বরুপ অনুষ্ঠানে আগত অতিথিদের সম্মাননা স্বারক তুলে দেয়া হয় সংগঠনের পক্ষ থেকে।

About Superadmin1

Check Also

হোটেল পেনিনসুলায় ‘ওয়েকআপ গার্লস ‘ আয়োজন করতে যাচ্ছে তিনদিনব্যাপী ভিন্নধর্মী ঈদ ফেস্টিভ্যাল।

হোটেল পেনিনসুলায় ‘ওয়েকআপ গার্লস ‘ আয়োজন করতে যাচ্ছে তিনদিনব্যাপী ভিন্নধর্মী ঈদ ফেস্টিভ্যাল। চট্টগ্রামে প্রথম বারের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *