Breaking News
Home / আমাদের চট্টগ্রাম / আলোর আশা ফাউন্ডেশন এর উদ্দ্যোগে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শীতবস্ত্র বিতরণ

আলোর আশা ফাউন্ডেশন এর উদ্দ্যোগে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শীতবস্ত্র বিতরণ

মানিক আহম্মেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :১৪ ই ডিসেম্বর বুদ্ধিজীবী দিবস।এই দিনে দেশ হারিয়েছে জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তানদের।শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্বরণে ও মহান বিজয়ের মাসে সকল শহদদের স্বরণে আলোর আশা ফাউন্ডেশন আয়োজন করেছে সুবিধাবঞ্চিত শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসূচী। চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনে আলোর আশা ফাউন্ডেশন কর্তৃক পরিচালিত হয় সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য স্কুল অব হিউম্যানিটি এন্ড এ্যানিমেশন সোহা স্কুল।আজ প্রথম পর্যায়ে সেখানকার নিয়মিত প্রায় অর্ধশতাধিক বাচ্চাকে শীতের পোষাক দেয়া হয়। এসময় প্রতিটি বাচ্চাছিল আনন্দিত ও পুলকিত।

আলোর আশার প্রতিষ্ঠাতা মুহাম্মদ আনোয়ার এলাহি ফয়সাল এর সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক তৌফিকুর রহমান ইমন ও দপ্তর সম্পাদক মোরশেদ আহম্মেদ শান্ত এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয়। প্রথমে বাচ্চাদের নিয়মিত ক্লাস কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে। ক্লাস নিতে দেখা গিয়েছে কয়েকজন সদস্যকে এবং ক্লাস শেষে প্রতিদিনের মত খাবার দেয়া হয়। শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সিনিয়র সহ সভাপতি মুরাদ শামসুল আলম খাঁন, সাধারণ সম্পাদক শরীফুল ইসলাম শরীফ ও সাংগঠনিক সম্পাদক কাইয়ূৃম হাওলাদার, এছাড়া ও উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী সঞ্জয় হাওলাদার ও জনপ্রিয় ইউটিউবার আরিফুল ইসলাম আরিফ সহ আরো অনেকে।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শরীফুল ইসলাম বলেন, আজ ১৪ই ডিসেম্বর, শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস, মহান বিজয়ের মাসে আজ আমরা সকলে শোকাহত।এই দিনে আমরা হারিয়েছি জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তানদের না হয় আমাদের দেশে আরো এগিয়ে যেতো। দেশকে উন্নত করতে হলে পথশিশু শব্দটি মুছে দিতে হবে। দেশের জনগণের বড় একটি অংশ আজ ও দারিদ্র্য সীমায় ও তারা সুবিধাবঞ্চিত। আমরা যদি নিজ জায়গা থেকে নিজ সামর্থ্য অনুযায়ী কমপক্ষে একটি শিশুর দায়িত্ব গ্রহণ করি তাহলে আমাদের দেশ ও সমাজ পল্টে যাবে।

আলোর আশার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আনোয়ার এলাহি ফয়সাল বলেন, মানবতা মূলক কাজ করতে পারি তাই ভাল লাগে।এজন্য মহান আল্লাহর নিকট কৃতজ্ঞ। মানুষের জীবন ক্ষণস্থায়ী, এই ক্ষণস্থায়ী জীবনে একটু হলে নিজদেশের প্রতি নিজে দেশের জনগণের জন্য নিজ সামর্থ্যনুযায়ী কিছু করা উচিৎ। বিজয়ের মাসে শহীদদের প্রতি সম্মান রেখে ও দেশের প্রতি ভালোবাসা থেকে কমপক্ষে একজন অসহায় শিশুর দায়িত্ব নেয়া উচিৎ তাহলে আমাদের দেশ আরো এগিয়ে যাবে।

নারী ও শিশু বিষয়ক সম্পাদক আয়শা তাহরীম নিতু বলেন, আমরা আজ প্রথম পর্যায়ে আমাদের স্কুলের বাচ্চাদের শীতের পোষাক দিলাম ইনশাআল্লাহ আমরা আরো সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও শীতার্ত পরিবারের পাশে থাকার চেষ্টা করবো। এজন্য আমাদের সাথে সকল বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানায়। বিজয়ের মাসে যারা অসহায় ও শীতার্ত তারা যেন শীতে কষ্ট না পায় এই হোক আমাদের অঙ্গীকার।
বাচ্চাদের শীতের পোষাক পড়িয়ে দেয়ার মাধ্যমে অনুষ্ঠান সমাপ্ত ঘোষনা করা হয়।

About Superadmin1

Check Also

হোটেল পেনিনসুলায় ‘ওয়েকআপ গার্লস ‘ আয়োজন করতে যাচ্ছে তিনদিনব্যাপী ভিন্নধর্মী ঈদ ফেস্টিভ্যাল।

হোটেল পেনিনসুলায় ‘ওয়েকআপ গার্লস ‘ আয়োজন করতে যাচ্ছে তিনদিনব্যাপী ভিন্নধর্মী ঈদ ফেস্টিভ্যাল। চট্টগ্রামে প্রথম বারের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *