উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় নিখোঁজ ফুটবলার সালা

আন্তর্জাতিক খেলাধুলা

ফ্রান্সের একটি ক্লাবে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন তিনি। বিশ্বের অন্যতম সেরা লিগ ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলার স্বপ্ন নিয়ে এমিলিয়ানো সালা প্লেনে করে পাড়ি দিচ্ছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পারেননি তিনি। যে বিমানে ছিলেন, সোমবার যাত্রা শুরু করা সে বিমানটির এখনো কোনো খোঁজ পাওয়া যায় নি।
বিমান ভ্রমণের একপর্যায়ে হঠাৎ বিপদের কথা টের পান সালা। সে সময়ের অনুভূতির কথা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হোয়াটস অ্যাপের মাধ্যমে জানান কাছের মানুষদের। সালার সে বার্তায় অনুধাবন করা যায় সে মুহূর্তের ভয়াবহতা, “হ্যালো! ছোট ভাইয়েরা তোমরা কেমন আছ? আমি আর নেই। আমি একটি প্লেনে আছি যেটি ভেঙে পড়ছে বলে মনে হচ্ছে , আমি কার্ডিফ যাচ্ছি। আগামীকাল থেকে শুরু হবে, বিকেলেই দলের ট্রেনিং। দেখা যাক কী হয়! ভাইয়া ও আপুরা, তোমরা কেমন আছ, সব ঠিক তো? এক ঘণ্টা বা দেড় ঘণ্টার মধ্যে যদি আমার কাছ থেকে কোনো খবর না পাওয়া যায়, আমি জানি না ওরা কাউকে পাঠাবে কিনা আমাকে খোঁজার জন্য। আমাকে হয়তো আর খুঁজে পাবে না তখন। কিন্তু বাবা তুমি তো জানো, আমি কতটা ভয়ে আছি”
ফ্রান্সের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ অবশ্য উদ্ধার অভিযানে নেমে পড়েছে। তাদের মুখোপাত্র জানিয়েছেন, ‘১৫ ঘণ্টা উদ্ধার অভিযানের পর,ইংল্যান্ড ও ফ্রান্স দুই পক্ষ থেকে খুঁজেই কিছু ভাসমান বস্তু পাওয়া গেছে। আমরা এটা এখনো নিশ্চিত হতে পারিনি যে এগুলো হারিয়ে যাওয়া বিমানের অংশ কিনা। বিমানটির কোনো চিহ্নই খুঁজে পাইনি। যদি সেটি পানিতে অবতরণ করে, তাহলে এই পর্যায়ে কোনো যাত্রীর বেঁচে থাকার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ। বেলা পড়ে যাওয়ার কারণে উদ্ধার অভিযান বন্ধ রাখা হয়েছে। সূর্যোদয়ের পর আবার এই অভিযান শুরু হবে। তখন পরবর্তী আপডেট জানানো হবে।’
এই মুহূর্তে শোকে কাতর সালার পরিবার। শোকাতুর কার্ডিফ সিটিও। ক্লাবটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কেন চুয়ের জানিয়েছেন,‘উড়োজাহাজটি হারিয়ে যাওয়ার ঘটনায় আমরা খুবই শোকাহত।’
ফরাসি লিগের ক্লাব নঁতের হয়ে খেলতেন সালা। ওয়েলসের ক্লাব কার্ডিফ সিটি তাদের ইতিহাসের রেকর্ড ১৭ মিলিয়ন ইউরো খরচে ২৮ বছর বয়সী এই আর্জেন্টাইন ফুটবলারকে দলে নেয়। চলতি মাসেই আর্সেনালের বিপক্ষে ম্যাচের মাধ্যমে সালার অভিষেক হতো বলেই ধারণা করা হচ্ছিল। কিন্তু সেটি বোধ হয় আর হলো না। আর্জেন্টিনায় তার ফিরে আসা নিয়ে প্রার্থনা করছেন ফুটবল ভক্তরা। প্রার্থনা তো গোটা ফুটবল বিশ্বেরই।o

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *